ত্বীন ফলের বাণিজ্যিক চাষ করে ডলার আয় করি | Fig Cultivation in Bangladesh | Tinfolbd | Azam Talukder

দেশের মানুষের পুষ্টির চাহিদা ও কৃষকের মান উন্নায়নে উদ্ভাবনী চেতনায় ত্বীন ফল চাষ শুরু করেন আজম তালুকদার। ত্বীন এক দিকে যেমন পুষ্টিসম্পূর্ণ অন্য দিকে কৃষকের জন্যও অত্যাধিক লাভজনক। দেশের অন্য কোন ফল ততটা লাভজনক নয় যতটা ত্বীন,এবং পুষ্টিতেও সবার সেরা। পবিত্র কোরআনে বর্ণিত, ত্বীন সুরার মাধ্যমে এদেশের মানুষ এই ফল সম্পর্কে জেনে থাকলেও চাষ করা ততটা বাস্তবমুখী মনে করেনি। তবে সব ভাবনার জল্পনা-কল্পনাকে পিছনে ফেলে মডার্ন এগ্র ফার্ম এই ফলটিকে বাণিজ্যিক চাষের রুপ দেয়।অর্থকরি এই ফলটি রপ্তানীতেও প্রচুর বৈদেশী মুদ্রা অর্জনে এগিয়ে চলছে এদেশেই উৎপাদিত ত্বীন ফল।

কেন ত্বীন ফল চাষ করবেন?
• উচ্চ ফলন: দেশের কৃষিতে ফল চাষে প্রচন্ড পরিশ্রম করেও উচ্চ ফলন তেমন ভাবে দেখা যায় না। অতি বেশী ফল পেতে ত্বীন চাষের বিকল্প দ্বিতীয় ফলটি আপাতত বাংলাদেশে নেই। কেননা এই ফল চারা হতে ৩-৫ মাসের মধ্যেই ফল দিতে শুরু করে। এবং সারা বছর ব্যাপি ফল দিতেই থাকে যা অন্য ফলে পাওয়া একেবারেই অসম্ভব। ১০০ বছর আয়ুকাল একটি ত্বীন ফল গাছ যা সারা বছর ফল দিয়ে যেতে থাকে।

• উচ্চ মূল্যের: বর্তমানে দেশের কৃষক ফল চাষে যথার্থ দাম না পেয়ে হতাশ। কেননা উচ্চ মূল্যের ফলের চাষের বড়ই অভাব এ দেশে। ত্বীনই একমাত্র ফল যার মূল্যে বাংলাদেশের সব ফলের তুলনায় সব থেকে বেশী। প্রতি কেজি ড্রাই ত্বীন ফল ২,৫০০-৩০০০ টাকা এবং গাছের পাকা ফল প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ১ হাজার টাকা করে। দেশের বাহিরেও এর দাম ১২-২০ ডলার প্রতিকেজি।

• দ্রুত সময়: ত্বীনই একমাত্র ফল যা স্বল্প সময়ে চারা থেকে শুরু করে ফলে রুপান্তর হয়। চারা কাটিং করে দ্রুতই চাষ বৃদ্ধিতে এই ফল অতিব কার্যকরী। প্রথম বছরের মাঝ থেকেই ফল আসা শুরু করে বছর ধরে ফল দিতেই থাকবে। এত ত্বরিত গতি সম্পূর্ণ ফল পাওয়া দুষ্কর।

• সল্প খরচ: অন্য ফলের তুলনায় এর খরচ ও আনুষাঙ্গিক উপকরণ ততটা ব্যয় বহুল নয়। সল্প টাকা খরচ করে আমাদের কাছ থেকেই মাদার চারা সরবরাহ করে আপনি চাষ শুরু করতে পারবেন। যেহেতু এই ফল চাষ ইতিপূর্বে কখনই হয়নি তাই প্রথম দিকে আমরাই আপনাকে সর্বোচ্চ সহায়তা করবো।

• বৈদেশীক আয়: দেশের গন্ডি পেরিয়ে বহির বিশ্বে রপ্তানিতে এই ফল অন্য ফলের তুলনায় অনেক বেশী এগিয়ে। কিছু দিন পর বাংলাদেশেই বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে এক নম্বর ফলে ত্বীনই রুপান্তর হবে।

বাজার চাহিদা:
বর্তমানে দেশের একমাত্র ত্বীন ফল বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান মডার্ণ এগ্র ফার্ম ফলের চাহিদা পূরণ করতে সর্বদা কাজ করে যাচ্ছে। তবে ফল প্রেমী দেশের কোটি মানুষের চাহিদা মেটানো একটি ফার্মের পক্ষে সম্ভব নয়। তাই নতুন নতুন ত্বীন চাষী উদ্যোগতা তৈরীতেও মডার্ণ এগ্রফার্ম কাজ করছে। দেশের বাজারের প্রচুর চাহিদার পাশা পাশি বৈদেশী মুদ্রা অর্জনেও বড় সুযোগ এদেশের কৃষকের। আমরা চাই প্রতিটি কৃষক লাভজনক ফল চাষ করে নিজে সাবলম্ভী, দেশের মানুষের পুষ্টির চাহিদা ও বৈদেশী মুদ্রা আনায়নে সরকারী রেমিটেন্স বৃদ্ধিতে কাজ করে যাবে। কৃষক কোন অংশে পিছিয়ে থাকবে না বরং কৃষকরাই এ মাটির সোনার সন্তান যা বৈদেশীক মুদ্রা অর্জনেও তাদের বেশ বড় অবদান থাকবে। আর এই অবদানের সব থেকে বড় হাতিয়ার ত্বীন ফল। কেননা, ত্বীন ফল মুসলিম বিশ্বের বাহিরে প্রায় সকল ধর্মের মানুষেরই এই ফলের প্রচুর চাহিদা বিদ্যমান । এশিয়া, আফ্রিকা, আমেরিকা থেকে শুরু করে সব মহাদেশেই এই ফলের চাহিদা আকাশ চুম্ভি।

ত্বীন ফল চাষে আমরা দিচ্ছি এসোসিয়েশন সুবিধা। পুরো বাংলাদেশে এই ত্বীন ফলের ২ হাজার উদ্যোগতা তৈরীতে কাজ করছে মডার্ণ এগ্র ফার্ম। দেশের মানুষের ফলের পুষ্টির চাহিদা পূরণ করার পাশা পাশি বৈদেশীক আয় যা কৃষক, মদ্ধসত্ত্বা ও দেশ উভয়কেই লাভবান গড়ে তুলবে।

ত্বীন ফল চাষী উদ্যোগতা হতে আমাদের প্রতিনিধির সাথে বিস্তারিত যোগাযোগ করুন: +88 01787453084, +88 01715768220

Like and follow Facebook: https://bit.ly/34Cg9og
Follow and join Facebook Group : https://bit.ly/3gAaJwe
follow on Website: https://bit.ly/3jiIeFd

#tinfolbd #ত্বীন #Fig #বাণিজ্যিকত্বীনফলচাষ #ত্বীনফল

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap