টবে ত্বীন ফল গাছ প্রতিস্থাপন ও সঠিক পরিচর্যা এবং মাটিতে ত্বীন ফলের চাষ | Krishi Deepti

টবে ত্বীন ফল গাছ প্রতিস্থাপন ও সঠিক পরিচর্যা এবং মাটিতে ত্বীন ফলের চাষ। Krishi Deepti
পবিত্র কুরআনে বর্ণিত ত্বীন ফল চাষ হচ্ছে এখন নীলফামারীতে। ত্বীন ফল চাষ পদ্ধতি।
এই ভিডিওতে টবে ত্বীন ফল গাছ প্রতিস্থাপন ও সঠিক পরিচর্যা এবং মাটিতে ত্বীন ফলের চাষ বিষয়ে তথ্য উপস্থাপন করা হয়েছে।
কী ভাবে ত্বীন ফল গাছের টবের মাটি প্রস্তুত করতে হয়, কী কী সার দিতে হয় এবং মাটিতে ত্বীন ফল গাছ লাগাতে চাইলে কী ভাবে মাটি প্রস্তুত করতে হয় গর্তর পরিমাপ কত হবে, কী কী সার দিতে হবে তা এই ভিডিওতে উল্লেখ করা হয়েছে। প্রয়োজনীয় সার। ত্বীন ফল গাছের পরিচর্যা-
ত্বীন ফল বিদেশী ফল। সম্প্রতি ত্বীন ফল বাংলাদেশে চাষ হচ্ছে। পবিত্র কুরআনে বর্ণিত রয়েছে ত্বীন ফলের কথা। সেই ত্বীন ফল এখন বাংলাদেশের অনেক জায়গায় চাষ হচ্ছে। ত্বীন ফলের অনেক গুণাগুন রয়েছে।
ত্বীন পুষ্টি সমৃদ্ধ সুস্বাদু ফল, যা মরু অঞ্চলে ভালো জন্মে। চরম জলবায়ু অর্থাৎ শুষ্ক ও শীতপ্রধান দেশে ত্বীন ফলের চাষ হলেও বাংলাদেশের নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ুতেও বছরের যে কোন সময় এই ত্বীন ফল উৎপাদন বা চাষ করা সম্ভব। বাংলাদেশের মাটি ও আবহাওয়ার সঙ্গে মানিয়ে নিয়েছে ত্বীন ফল বা ত্বীন ফল গাছ। শুধু তাই নয় বাংলাদেশে ব্যাপকভাবে ত্বীন ফল চাষ শুরু হয়ে গেছে।
ত্বীন ফল চাষে মানুষের আগ্রহ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইত:মধ্যে ত্বীন ফল চাষ শুরু হয়ে গেছে জেলায় জেলায়। আশা করা যায় ত্বীন ফলের ব্যাপক চাষ হলে আমাদের বাংলাদেশের সারাবছরের পুষ্টি ও ফলের চাহিদা পূরণ করতে পারবে এবং ত্বীন ফল রপ্তানির সম্ভাবনাও উজ্জ্বল।
উইকিপিডিয়া উল্লেখ করেছে-
“ মুসলিম ধর্মগ্রন্থ কুরআনে ‘ত্বীন’ (আঞ্জির) নামে একটি অনুচ্ছেদ বা সূরা রয়েছে। সেখানে এই ফলকে আল্লাহর বিশেষ নিয়ামত বা অনুগ্রহরূপে ব্যক্ত করা হয়েছে। বাইবেলে এই ফলের উল্লেখ আছে[১]; সেখানে বলা হয়েছে, ক্ষুধার্ত যীশু একটি আঞ্জির গাছ দেখলেন কিন্তু সেখানে কোনো ফল ছিল না, তাই তিনি গাছকে অভিশাপ দিলেন “
বাংলাদেশে যে ত্বীন ফল দেখা যায় তাকে আমরা ডুমুর বলি। বাংলাদেশের গ্রামেগঞ্জে যে ডুমুরের যে গাছগুলো হয় সে ডুমুরগুলো হলো জগডুমুর। এর বৈজ্ঞানিক নাম Ficus racemosa। জগডুমুরের বিভিন্ন প্রজাতি আছে। কোনোটি বিশ-ত্রিশ গ্রাম, আবার কোনোটি পঞ্চাশ-ষাট গ্রাম ওজনের হয়। পাকলে কোনোটি লাল, আবার কোনোটি হলুদ রং ধারণ করে।
এই ভিডিওতে আমরা মিশরীয় ত্বীন ফলের চাষ পদ্ধতি, মাটি প্রস্তুত, সার ব্যবহার, সারের পরিমাণ দেখিয়েছি। মিশরীয় ত্বীনকে Egyptian Ficus বলা হয। মিশরীয় এই ত্বীন ফল খুব রসালো এবং অনেক বড়ো হয়। এই ত্বীন ফল সরাসরি কাঁচা খাওয়া যায়, পাকা খাওয়া যায় আবার রোদে শুকিয়ে কাচের কন্টেইনারে রেখে সারা বছর খাওয়া যায়।
পৃথিবীর অনেক দেশে ত্বীন ফলের চাষ হয়। বিশেষ করে মধ্যপ্রাচ্য ও পশ্চিম এশিয়ায় এই ত্বীন ফল বাণিজ্যিকভাবে উৎপাদন করা হয় এবং এই ত্বীন ফল একটি গুরুত্বপূর্ণ অর্থকরী ফসল। আফগানিস্তান থেকে পর্তুগাল পর্যন্ত এই ত্বীন ফলের বাণিজ্যিকভাবে চাষ হয়ে থাকে।
ত্বীন ফল এর আদি নিবাস হলো মধ্যপ্রাচ্য। ত্বীন ফল প্রায় গাছ ৬ মিটার পর্যন্ত লম্বা হয়ে থাকে।
সম্প্রতি অধিক হারে ত্বীন ফল চাষ হচ্ছে মিষর, তুরস্ক, আলবেনিয়া, আলজেরিয়া, মরোক্কো, ইরান, যুক্তরাষ্ট্র, সিরিয়া, ব্রাজিল, তিউনিসিয়াসহ বেশ কিছু দেশে।
এই ভিডিওতে দেখানো হয়েছে কী ভাবে ত্বীন ফল গাছ লাগাতে হয়। ত্বীন ফল গাছ লাগানোর আগে কোন আকৃতির গর্ত করতে হয়, ত্বীন ফল গাছের গর্তে কী কী সাস দিতে হয়, কী পরিমাণ সার লাগে ত্বীন ফল গাছের জন্য। এ ছাড়াও ত্বীন ফল গাছ টবে লাগাতে হলে টবের মাটি কী ভাবে তৈরি করতে হয়। কী কী সার দিতে হয়। কী পরিমাণ সার দিতে হয়। ত্বীন ফল গাছের জন্য কোন কোন সার ব্যবহার করা দরকার। এ সব বিষয়ে বলেছেন নার্সারির একজন সফল মালিক এ, আর মামুন। সাক্ষাতকার গ্রহণ করেছেন রাজা সহিদুল আসলাম।
ভিডিও ধারণ করেছেন মো. রমজান আলী। ভিডিও সম্পাদনা করেছেন রাজা সহিদুল আসলাম।
যারা ত্বীন ফল গাছ লাগাতে চান বা যারা ত্বীন ফল গাছের বাগান করতে আগ্রহী তাদের জন্য এই ভিডিও Krishi Deepti চ্যানেলের পক্ষ থেকে তৈরি করা হয়েছে।
#krishideepti #টবেত্বীনফলগাছপ্রতিস্থাপন #টবেত্বীনফলগাছেরপরির্চযা

Leave a Comment

Share via
Copy link
Powered by Social Snap